নিদ্রীত শোভা – মাহবুব জামান আশরাফী

Featured

Tags

, , , , , , , , , , , , , , , , , , ,

ডাউনলোড করুন : Nidrito Shova

নিদ্রিত শোভা 

মাহবুব জামান আশরাফী

এক

২৯ জুন ১৭৮৮,
বার্মিংহাম। ইংল্যান্ড।

সকাল থেকেই বার্মিংহাম শহরে হৈচৈ পরেছে, চার্চের ঘন্টা বাজছে বিরামহীন। প্রায় তিন বছরের অক্লান্ত চেষ্টার পর আজ ভোররাতে বার্মিংহাম শহরের মানুষের দুশ্চিন্তা এর অবসান হয়েছে। শহর জুড়ে ত্রাস চলানো এক ডাইনী ধরা সম্ভব হয়েছে। অবস্থা এমন দাড়িয়েছিল যে খোদ চীনদেশ থেকে তান্ত্রিক আনতে হয়েছে ডাইনি নিধন করতে।  
গত তিন বছরে শহরের অগনিত গবাদী পশু মারা পড়েছে। হাজার রকম নিরাপত্তা্র ব্যবস্থা করেও লাভ হয়নি। ফার্ম হাউজগুলোর কাছাকাছিই পাওয়া যেত মৃত পশু গুলোর দেহ।  সরাসরি কোনো মানুষের ক্ষতির কথা অবশ্য শোনা যায়নি, তবে গভীর জঙ্গল থেকে মাঝরাতে ডাইনিটার চিৎকার শুনেছে অনেক মানুষ। সেই চিৎকারে নিশ্চুপ হয়ে যেত বনের ঝিঁঝিঁ পোকারাও। মাঝে মাঝেই লোকালয়ে দেখা যেত ডাইনীটাকে। অপূর্ব সুন্দর মুখশ্রী, কিন্তু কোথায় যেন ভয়ংকর একটা কিছু লুকিয়ে আছে। নির্জীব প্রাণহীন চোখে তাকিয়ে থাকত ডাইনী টি এতেই আত্মা শুকিয়ে যেত পথচারীদের। পারতপক্ষে সন্ধ্যার পর শহরের লোকজন ঘর থেকে বের-ই হতো না বলা যায়।
সেই ভীতিকর ডাইনীকে দেখতেই আজ গোটা শহর ভেঙ্গে লোক এসেছে, তাদের সবার চোখে মুখে স্বস্তির গাঢ় রেখা। ডাইনীটাকে দেখাচ্ছে বিধ্বস্ত, চুলগুলো চলে এসেছে মুখের উপরে, হাতদুটো পেছনে বাঁধা, ঠোঁটের কোণা কেটে গিয়ে কালচে রক্ত জমাট বেধে আছে।

দুপুর ঠিক বারোটা এক মিনিটে টাউন হলের সামনে পুড়িয়ে মারা হলো তাকে।

রাতে পানশালা গুলোতে বিনে পয়সায় পান চলল। পাগলাটে বুড়ো উইলবারের উদ্ভট আচরণও শহরবাসীর মনে বিরক্তি জাগালো না। ডাইনী মরেছে, এখন আনন্দ করাই যায়!
ডাইনীটার নাম কিন্তু কেউ জানতে পারেনি, আসলে জানতে কেউ চায় ও নি। যে আমলের কথা বলা হচ্ছে, তখন গোটা ইউরোপ জুড়েই ছিল ডাইনী নিধন নামক অসুস্থ খেলার স্বর্ণ যুগ। এরকম বিভ্রান্তকর এক সময়ে বাবা-মায়ের একমাত্র কন্যা সুশান রাইট কে যখন জ্বলন্ত আগুনে পুড়িয়ে মারা হলো তখন সেই আর্ত চিৎকার শোনা যায় নি । শুধু  তার পুড়ে যাওয়া শরীরের চাই গুলো মিশে গিয়েছিল বার্মিংহামের পথে প্রান্তরে। সেই চাই গুলো হয়তো কাউকে খুঁজছিল।

Continue reading

জনসন রোড, পুরান ঢাকা

Featured

কিছু কথা

২০১৩ সালে BBA শেষ করার পর হঠাৎ করে LLB তে ভর্তি হলাম৷ সবাই আমার উপর ক্ষেপা৷ সবাই ধরেই নিল আমার মাথায় সমস্যা দেখা দিয়েছে ৷ আমাকে দিয়ে জীবনে আর কিছু হবে না৷ অনেকে অনেক রকম কথা বল্ল অনেক রকম আন্দাজ করল৷ কেউ ভাবল আমি  BBA তে খুব খারাপ রেজাল্ট করেছি সুতরাং আমাকে দিয়ে ঐ লাইনে কিছু হবে না তাই আমি আইন বিদ্যা রপ্ত করতে শুরু করেছে ৷ যেহেতু আমার পরিবার এবং আত্মিয় স্বজন দের মাঝে ডজন খানেক (আরো বেশী হবে মনে হয়, কিন্তু ডজন খানেক শুনলে ভাল শোনায় তাই ডজন খানেক ই থাক) আইন পেশায় নিয়জিত৷ সবাই ভাবল আমি সেই সুযোগ নিচ্ছি৷  আবার কেউ ভাবল আমি স্রেফ পাগল হয়ে গেছি ৷ কেউ ভাবল BBA আর Law ভাল combination সমস্যা কি ? …

Continue reading

ভোরের আধার, রাতের আলো

Featured

রাতের শেষে ভোর হয় এটাই স্বাভাবিক ৷ কিন্তু কোনটা বেশি সুন্দর রাত ? নাকি ভোর ? আস্তে আস্তে সূর্যের আভা ঢাকার daynightbigরাজ পথে পড়ছে ৷ আলোয় নাকি অনেক কিছু ধরা পড়ে ৷ আলো নাকি অন্যায় অবিচার সব ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করে দেয় ৷ এখন তাহলে অমন একটা সময় ই হবে ৷ কাড়ন রাতের যত কুৎসিত , যত গ্লানি  আলোয় আলোকিত হয়ে যাবে ৷

 

রমনা পার্কের সাইট ধরে একটা ফুট পাথ এ বসে আছি ৷  মাথাটা প্রচুর ধরেছে ৷ কোনও একটা মেডিসিন খেয়ে সোজা বিছানায় যাওয়া উচিত ৷ কিন্তু কি এক নেশায় পেয়ে বসেছে ৷ উঠতে ইচ্ছে হচ্ছে না ৷ প্রচন্ড শীত ৷ কুয়াশা বৃষ্টির মত  পড়ছে ৷ কেউ আমার শার্ট ধরলে হয়তো বলবে ঘেমে ভিজে গেছে ৷ শীতে হুডি ছাড়া টিশার্ট  পড়ি না কিন্তু হায় আজ তা ও পড়ি নাই ৷ প্রচন্ড শীতে নির্ঘাত নিউমোনিয়া হবে মনে মনে হচ্ছে ৷ দূরে একটা ল্যাম্প পোষ্ট জ্বলছে ৷ তার নিচে দুটো ছোটো বাচ্চা একটা পাতলা বস্তা গায়ে দিয়ে শুয়ে আছে ৷ একজনের পুরো শরীর ঢাকলে  আরেক জনের শরীর বের হয়ে যাচ্ছে ৷ কখনো হয়তো পা কখনো হয়তো হাত ৷ কিছুক্ষণ পর পর এ পুরো শরীর ঢাকছে তো ওর পাশে টানা পোড়ন হয়ে যাচ্ছে ৷ কিছুক্ষণ পড়ই সূর্য উঠবে ৷ আমার ধরণীর বুকে প্রাণ ফিরে আসবে  এই দুটো বাচ্চা ছেলে হয়তো আরেকটি রাত কোনও মতে কাটিয়ে দেওয়ার সময় গুনছে ৷

Continue reading

সময়

Featured

Tags

, , , , , , ,

এই নিন আপনার পানি , কি ব্যাপার বলুন তো, আপনাকে তো চিনতে পারলাম বলে মনে হয় না ৷ বলে ভ্রু টা একটু কুচকে তাকালেন আজির সাহেব ৷ আজিজ সাহেব বেশ অধৈর্য মানুষ বলা চলে ৷ তার মাঝে বয়স বাড়লে নাকি মানুষের মেজাজ খিট মিটে হয় আরও বেশি৷ তাই হবে হয়তো ৷ তার সামনে বসা একটা তরুণ, বয়স ১৮-১৯ হবে হয়তো ৷ ছেলেটার চোখে চশমা, পড়নে একটা পাঞ্জাবী ৷ এই বয়সে ছেলে পেলেরা তেমন একটা পাঞ্জাবী পড়ে না ৷ পা থেকে মাথা পর্যন্ত একবার চোখ বুলিয়ে – এই যে শুনছেন কি চাই ? বলে মোটা-মোটি একটা ধমক দিল আজির সাহেব ৷ আজির সাহেবের ধমক শুনে ছেলেটা কিছুটা থতমত খাবে বলে ভাবলে ও ছেলেটার মাঝে তেমন বলার তেমন কোনও লক্ষণ দেখতে পেল না আজির সাহেব ৷ মহা বিরক্ত হলেন তিনি, শুরু করলেন , দেখ আমি খুবই ব্যস্ত মানুষ তোমার সাথে বাবা ফালতু সময় নষ্ট করার পরিস্থিতি আমার নাই ৷ ১ মাস ও নাই ঈদ এর, এই ম্যাগাজিন সেই ম্যাগাজিন সবার এক কথা আমার লেখা তাদের ঈদ সংখ্যায় চাই ৷ আর তুমি…. কথা টা শেষ করতে পারলেন না আজির সাহেব ৷ ছেলেটা বলে উঠলেন ঠাণ্ডা পানি ! ভীষণ চটে উঠলেন আজির সাহেব , উচ্চ স্বরে বলে উঠলেন দেখ ছেলে তুমি আমার ছেলের বয়সী হবে বেয়াদপী করছ আমার সাথে ? বাসায় ধুকতে দেওয়াই ঠিক হয়নি দেখছি ৷ আজির সাহেব রাগলে কোনও কিছু থাপড়ান , উনার সামনে কোনও টেবিল নেই তাই সোফার হাতল থাপড়াতে থাপড়াতে কথা গুলো বললেন ৷

Continue reading

রাত ১২.০১

Featured

Tags

, , , , ,

লেখাটি আমার বন্ধু অনিক  কে উৎসর্গ করলাম, ওর কাছে রাত আমার মতই অদ্ভুত সুন্দর সময় ,

রাত ১২.০১
এখন রাত ১২.০১ আমার ঘুম থেকে উঠার সময়৷ যেমনটি গত কাল ও ছিল৷ গত কাল ১২.১০ এর দিকে বারান্দায় যেয়ে বসে ছিলাম৷ একটা গান শুনছিলাম৷ গানটা স্বপ্ন নিয়ে৷ গান শুনছিলাম আর মাঝে মাঝে কয়েকটা সাইট রি ফ্রেশ দিচ্ছিলাম৷ মাঝে মধ্যে বাইরে ও তাকাচ্ছিলাম৷ ১২.০১ ঢাকা শহরে তেমন রাত না হলেও আবার অনেক রাত৷ অল্প কিছু মানুষ যাচ্ছিল মাঝে মধ্যে৷ হঠাৎ দেখলাম একটা ছেলে ! আমার মত বয়স ই হবে কি যেন ভাবলাম … দৌরে বাইরে নিচে নামলাম৷ ৫ তলা থেকে নামতে ৩ মিনিট এর মত লাগে৷ কিন্তু সেই তিন মিনিট এর সিড়ি ১ মিনিট এর ও কম এ নামলাম৷ ৩৪ সেকেন্ড ঘড়ি ধরে ৷ বেরিয়েই চিৎকার করে দারোয়ান কে বল্লাম জলদি খুলেন৷ দারোয়ান আর গেট তখন অনেক দুরে দৌরে বেরুলাম আরো ৫ সেকেন্ড৷ বেরিয়ে যেদিকেই ছেলেটাকে যেতে দেখেছিলাম৷ সেদিকে তাকিয়ে দেখি কেউ নাই৷ সামনে বিশাল রাস্তা পুরো ফাকা৷ ভাবলাম শিল্পকলার গলি দিয়ে গেছে হয়তো৷ অথবা জি টিভি এর গলি দিয়ে৷ দৌর….

Continue reading

ছোটদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

 

PDF : ছোটদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

ePub :  ছোটদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

Continue reading